শিশুদের কাঁদার কারন

0
374
Newborn crying baby boy. New born child tired and hungry in bed under blue knitted blanket. Children cry. Bedding for kids. Infant screaming. Healthy little kid shortly after birth. Cable knit textile

আমার মনে হয় যে, আমাদের শিশুর জন্মের সময়, তারা যখন প্রথমবার কাঁদে, শুধুমাত্র সেই কান্না শুনেই আমরা আন্নন্দ পাই । এরপরের যেকোনো কান্নাকাটি আমাদের উদ্বিগ্ন করে তোলে। বিশেষ করে নতুন মা-বাবার ক্ষেত্রে। তারা ধরে নেয় যে তারা ভাল বাবা-মা নয় কারণ তারা তাদের কান্না থামাতে পারে না।

শুরুতে এটা জানা গুরুত্বপূর্ণ যে জীবনের প্রথম কয়েক সপ্তাহে প্রতিদিন 2-3 ঘন্টা কান্নাকাটি করা স্বাভাবিক। আপনি এটা নিয়ে কোনো কিছু করতে পারবেন না। আপনার মনোযোগ আকর্ষণ করার জন্য আপনার ছোট্টটির জন্য যোগাযোগের একমাত্র মাধ্যম হল “কান্না”। একজন বুদ্ধিমান পিতামাতা সর্বদা শান্ত থাকার চেষ্টা করবেন এবং শিশুর কথা শুনবেন……

1. “আমি ক্ষুধার্ত”… প্রায় সবসময়, কান্নাকাটি করলেই শিশুকে ক্ষুধার্ত বলে মনে করা হয়, যা বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই সত্য হতে পারে, তবে তার কান্নার কারণ যদি খিদে না হয় তাহলে সেই বিষয় আপনাকে খতিয়ে দেখতে হবে।

2. “আমি ক্লান্ত”… অত্যধিক উদ্দীপনা বা উজ্জ্বল আলো বা জোরালো শব্দের কারনে বাচ্চারা যখন অতিরিক্ত ক্লান্ত হয়ে পড়ে তখন তারা কান্নাকাটি করে। সুতরাং শুধু তাদের জড়িয়ে ধরে রাখুন । তারা রিল্যাক্স থাকার জন্য স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করতে চায়।

3. “আমি ভিজে এবং অপরিষ্কার”… একটি নোংরা ডায়াপার শিশুর সংবেদনশীল ত্বকে জ্বালা সৃষ্টি করতে পারে এবং সেটি তার কান্নার কারন হতে পারে । সুতরাং অনুগ্রহ করে তার ডায়পার চেক করুন। প্রতি তিন ঘন্টা অন্তর অন্তর তাদের ডায়াপার পরিবর্তন করা একটি ভালো অভ্যাস এতে ডায়াপারের ফলে র‍্যাস হওয়ার সম্ভাবনা কমে যায় ।

4. “আমার পেট মোচড়ানো ব্যথা”… পেট মোচড়ানো ব্যথার কারণ এখনও একটি রহস্য। এটি অ্যাসিড রিফ্লাক্সের মতো কোনও নির্দিষ্ট চিকিৎসার কারণে অসস্তিকর আচরণ সৃষ্টি করে । শুধু তাকে আপনার কাঁধে সোজা করে ধরে রাখুন এবং তাকে নিয়ে চারদিকে ঘুরুন । এটি তাকে শান্ত করতে সাহায্য করতে পারে।

5. “আমি ব্যথা অনুভব করছি”… আপনার শিশু কানের ব্যথা বা ত্বকের ফুসকুড়ি বা গলা ব্যথার কারণে কান্নাকাটি করতে পারে বা তার কান্নার কারণ সংবেদনশীল বাতাস হতে পারে বা বুকের সংকোচন বা পেটের সংক্রমণ বা অ্যাসিড রিফ্লাক্সের মতো অন্য কোনও চিকিৎসাগত কারণও থাকতে পারে যার জন্য উপযুক্ত চিকিৎসার প্রয়োজন হতে পারে।

6. ” খুব গরম বা খুব ঠান্ডার ফলে”… আপনি যদি আপনার বাচ্চাকে ভারি পোশাক পড়িয়ে রাখেন তবে সে খুব গরম এবং ঘাম অনুভব করতে পারে, যেটি অবশ্যই তার কান্নার কারণ পারে। কারণ , সে ঠান্ডার চেয়ে গরম বেশি সহ্য করতে পারেন। সুতরাং, যদি সে খুব বেশি কান্নাকাটি করেন তবে অনুগ্রহ করে ঘরের তাপমাত্রা পরীক্ষা করুন এবং তার পছন্দসই তাপমাত্রা সেট করুন।

বাচ্চারা যেসব কারণে কান্নাকাটি করতে পারে এমন জিনিসগুলির অসীম তালিকা রয়েছে , তবে মনে রাখবেন যে কান্নাকাটির সাথে মোকাবিলা করা মা এবং শিশু উভয়ের পক্ষেই সহজ হয়ে যায় কারণ সে নতুন বিশ্বের সাথে মানিয়ে নিতে শুরু করে এবং তার কী প্রয়োজন তাও আপনি আরও ভালোভাবে জানাতে শুরু করবেন । কিন্তু যতদিন না আপনি আত্মবিশ্বাসী হন ততদিন অনুগ্রহ করে পেশাদারের সহায়তা নিন।

লিখেছেন

ডঃ প্রীতি গাঙ্গান

এমবিবিএস, ডিসিএইচ, আইবিসিএলসি

শিশুরোগ বিশেষজ্ঞ এবং ল্যাক্টেশন পরামর্শদাতা

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here