বিশ্বের সবচেয়ে মেজাজি সুপার মডেলের সাথে দেখা করুন: শিশুরা!

0
912
Mother photographer photographing of her baby on camera.

স্মার্ট মা – “বাবু বলো চিজ!”

মেজাজি ক্ষুদে মডেল – “না মা, জ্যাম প্লিজ!”

আপনার ছোটো মডেলের ছবি ক্লিক করা কখনই সহজ নয়। তাদের (স্ব – নিযুক্ত) ফটোগ্রাফার হিসেবে আমরা জানি যে, তাদের এক জায়গায় আটকে রাখা এবং অন্য কিছু তাদের মনোযোগ আকর্ষণ করার আগে সেই মিষ্টি হাসিটা ক্যামেরাবন্দি করাটা কতটা কঠিন। তারপর লাইটিং, রাইট অ্যাঙ্গেল, পারফেক্ট সেটিং এগুলো তো রয়েইছে …

চিন্তা করবেন না, আপনার ‘স্ন্যাপ’ সংক্রান্ত সমস্যাগুলিকে সমাধান করতে এই ব্লগটি পড়ুন! দুর্দান্ত ছবি তোলার জন্য এখানে কিছু টিপস রয়েছে:

তাদের শান্ত এবং খুশি রাখুন

আপনার বাচ্চা কি ছবি তোলার সময় রেগে যায়? হয়তো সে পর্যাপ্ত পরিমানে বিশ্রাম নিতে পারছে না! ছবি ক্লিক করার আগে খেয়াল রাখুন যে আপনার বাচ্চার পর্যাপ্ত পরিমানে ঘুম হয়েছে কি না, তাকে ঠিকভাবে খাওয়ানো হয়েছে কি না এবং সে আরামদায়ক পোশাক ও শুকনো ডায়াপার পরেছেন কি না।

সবসময় প্রাকৃতিক আলোতে ছবি তুলুন!

হঠাৎ আলোর ঝলকানি আপনার শিশুকে আচ্ছন্ন করে ফেলতে পারে। আমাদের পরামর্শ: ফ্ল্যাশের ব্যবহার এড়িয়ে চলুন এবং দিনের আলোয় চলতে ছবি তুলুন! একটি আকর্ষণীয় ফিল্টার তৈরী করুন , আপনি একটি জাল ঝুড়ি ব্যবহার করে তার মধ্যে দিয়ে কিছু আলো অতিক্রম করান এবং আপনার শিশুর মুখের উপর আলোটিকে পড়তে দিতে দিন।

মনোযোগ,দিন। দুশ্চিন্তা, করবেন না।

অফ-ক্যামেরা দুষ্টুমি আপনার শিশুকে অন-ক্যামেরা মুহূর্তগুলির জন্য সত্যিই ভাল মেজাজে রাখতে পারে। মুখ ভেঙ্গানোর মতো বা ফানি ফেস বানান হাস্যকর শব্দ করুন, নানা অঙ্গভঙ্গি করুন। বিটিএস অ্যাকশনে যোগ দিতে দিদা – দাদুকে ডেকে আনুন! এবং তারপর আপনার শিশুর হাসি, আনন্দ দেখুন এবং সেই সময় আপনাকে সে ছবি তোলার জন্য সবচেয়ে কিউট এক্সপ্রেশন দেবে। তারপর ছবিগুলো ইন্সটাগ্রামে পোস্ট করে দিন।

একটি ফ্রেমের মধ্যে কি আছে?

উজ্জ্বল বা নিস্তেজ দেয়ালে ছবি তোলা এড়িয়ে চলুন। একটি সাদা বা অফ-হোয়াইট দেয়াল বেছে নিন বা কয়েকটি চেয়ার একটি সাদা চাদর দিয়ে ঢেকে দিন ব্যাস আর কি, আদর্শ ব্যাকড্রপ প্রস্তুত! শুধু ফ্রেমে থাকা কোনো অবাঞ্ছিত বস্তু এডিট করতে ভুলবেন না।

প্রপ ব্যবহার করুন প্রো-এর মতো!

প্রপস এখন ট্রেন্ডে চলছে এবং প্রো-দের মতো ছবি পপ করুন । আপনার শিশুর প্রিয় টেডি বিয়ার বা খেলনা ট্রাক তার মনোযোগ কেড়ে তাকে শান্ত করবে এবং ফ্রেমে কিছু গল্প যোগ করুন! এমনকি আপনি আপনার শিশুকে একটি মালা পরিয়ে দিতে পারেন, তার পাশে কয়েকটি কাঠের লেটার ব্লক রাখতে পারেন বা তাকে একটি ঝুড়ি বা বাক্সে বসিয়ে দিতে পারেন!

স্মার্ট মামদের পক্ষ থেকে এইটুকুই। অনুগ্রহ করে ক্যাপশনে #ReadySteadyClick-লিখে সোশ্যাল মিডিয়াতে আপনার ক্লিক করা ছবিগুলি পোস্ট করুন এবং আমাদের ট্যাগ করতে ভুলবেন না। আশা করি আপনার সব প্রচেষ্টা যেন সফল হয়!

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here