আমার পোস্ট লকডাউন বাকেট তালিকা!

0
142

এটা সত্যি, সত্যি, সত্যিই শেষ হচ্ছে।  লকডাউনে শেষ হচ্ছে এবংসবকিছু  স্বাভাবিকের দিকে ফিরে আসছে। যদিও আমাকে এইটা মানতেই হবে যে লকডাউনে আমরা  অনেক কিছু শিখেছি, যেমন-  আমার স্বামী রান্না শিখেছে; তার রুটি  এখন গোল হয় , অস্ট্রেলিয়ার মানচিত্রের মতো নয়। তিনি অভিযোগ ছাড়াই কাজ করেন । এবং তিনি ডায়পার পরিবর্তন করতে, শিশুকে খাওয়াতে (আমার ব্রেস্ট পাম্প দিয়ে) এবং শিশুর আরও দায়িত্ব পালন করতে পেরে অনেক  খুশি। তাই  আমি আমার স্বামীর এই ‘লকডাউন’ অবতারে  কোনো  পরিবর্তন করতে চাই না, তবে আরও কিছু জিনিস আছে যা আমি অবশ্যই পরিবর্তন করতে চাই…

আমি কিছু অফলাইন পারিবারিক সময় চাই

আমি জানি অনলাইনে জন্মদিন এবং বার্ষিকী শুভেচ্ছা জানানো একটি দুর্দান্ত আইডিয়া কিন্তু এই খুশীর দিনগুলিতে পরিবারের কাছ থেকে একটি ওয়ার্ম হাগ পাওয়া এবং তাদের সাথে সময় কাটানোর খুশিটা অতুলনীয়।  একবার আমাদের আনুষ্ঠানিকভাবে এটি করার অনুমতি দেওয়া হলে, আমি আমার বাচ্চাকে তার দাদু , দিদা  এবং ঠাকুমা , ঠাকুরদার  সাথে আবার দেখা করতে নিয়ে যেতে চাই। একটি ঘরে, ভিডিও কলের মাধ্যমে নয়, সামনা-সামনি।

আমি আমার শিশুরোগ বিশেষজ্ঞের সাথে সামনা-সামনি দেখা তার পরামর্শ নিতে চাই

এই লকডাউনের কারণে আমরা শিশুরোগ বিশেষজ্ঞের সাথে সামনাসামনি দেখা  করতে পারি নি । তার নিরাময় স্পর্শ যে নিশ্চয়তা প্রদান করে তা আমরা যে অনলাইন পরামর্শ গ্রহণ করছি তার চেয়ে অনেক ভালো। আমরা সব  #smartmums-রা কি এর সাথে  একমত নই?

আমি একটি  লং ড্রাইভে যেতে চাই

আমরা কি  সূর্যাস্ত দেখা  , সেই মৃদু বাতাস অনুভব করা , শিশুকে আনন্দে লাফিয়ে উঠতে দেখা  এবং  রোড ট্রিপগুলো মিস করি না  ? একবার পরামর্শ পেলেই , আমি অবশ্যই আমার পরিবারের সাথে একটি রোড ট্রিপে যাবো ।  এমন একটি  ট্রিপ যেখানে পুলিশ প্রতি 5 মিনিট অন্তর অন্তর আটকে আমাদের এইটা জিজ্ঞাসা করবে না যে কেন আমি নিরাপত্তা ছেড়ে বাড়ির বাইরে ঘুরে বেড়াচ্ছি ।

আমি বাইরে গিয়ে আমার বাচ্চার সাথে খেলতে চাই

আমি সেই সময়গুলি  মিস করি যখন আমার শিশু বাইরে গিয়ে  তার বন্ধুদের দেখে দেখা করে এবং তাদের সাথে খেলা করে । বাচ্চাদের সেই সমস্ত গুঞ্জন, বকবক, হাসি-ঠাট্টা, এইসবই আমি মিস করি । আমি অপেক্ষায় রয়েছি যে কখন লকডাউন শেষ হবে এবং কখন আমি আমার বাচ্চাকে তার বন্ধুদের সাথে খেলতে দেখবো ।

আমি প্রকৃতির সবুজের স্পর্শ পেতে ব্যাকূল

‘ ইতিমধ্যে কিছু জায়গায় পার্ক খোলা হয়েছে। একবার স্বাভাবিকতা পুনরুদ্ধার করা হলে, আমি আমার শিশুকে পার্কে  হাঁটতে নিয়ে যেতে চাই, পাখির আওয়াজ  শুনতে চাই, অন্য বাচ্চাদের সাথে খেলতে চাই এবং গোলাপের গন্ধ পেতে  চাই।

আমি পার্লারে গিয়ে  টিএলসি করাতে  চাই

পেডিকিউর ম্যানিকিউরও করাতে চাই । খারাপ চুল ঠিক করাতে চাই । আমার আশেপাশের সেলুনে এইসব কিছুই হয় । এখন যা প্রয়োজন তা হল খোলার অনুমতি। সেখানে যাওয়ার জন্য আমি আর অপেক্ষা করতে পারছি না।

আমি আমার গৃহপরিচারিকাকে সম্মানের সাথে স্বাগত জানাতে চাই

লকডাউনের মাধ্যমে বাড়ির সমস্ত কাজ করা আমাকে শিখিয়েছে যে আমার কাজের মেয়েটি কতটা অপরিহার্য। এবং সে কতটা পরিশ্রম করে। আমাদের সমাজ অনুমতি দিলে, আমি তাকে স্বাগত জানাতে চাই । এবং, হ্যাঁ, আমি অবশ্যই তার মাইনে বাড়াচ্ছি । এখন, আমরা #SmartMums দের  কাছ থেকে তাদের মতামত  শুনতে চাই। অনুগ্রহ করে আপনার #PostLockdownBucketList আমাদের সাথে শেয়ার করুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here